ফাল্গুন নিয়ে ক্যাপশন, শুভেচ্ছা মেসেজ ও কবিতা

বাংলাদেশের ছয়টি ঋতুর রাজা হলো বসন্তকাল। অন্যান্য ঋতুর মতো বসন্তকাল ও ফাল্গুন ও চৈত্র এ দু মাস নিয়ে গঠিত হয়। এ সময় বাংলার প্রতিটি মাঠ ঘাট অপূর্ব রূপে সজ্জিত হয়। শেষ বিকালের গোলাপি আলো মিলিয়ে যেতে না যেতেই দূর আকাশের সন্ধ্যাতারা যেন জানান দেয় বাংলা সেজেছে তার অপরূপ সাজে।সারা বছরের মৃত প্রকৃতি বসন্তের জাদুময়ই স্পর্শে যেন প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে।

বসন্ত পরিবেশের প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষা করে পরিবেশকে সুন্দর করে তোলে। ফাল্গুন কে বরণ করে নিতে বাংলার বিভিন্ন জায়গায় বসন্ত বরণ অনুষ্ঠান পালন করা হয়। সাধারণত নৃত্য ও সংগীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে বসন্ত করন অনুষ্ঠান শুরু হয়ে থাকে। এছাড়া অনেকেই ফাল্গুন নিয়ে ক্যাপশন দিয়ে বসন্ত কে স্বাগত জানায়।

ফাল্গুন নিয়ে ক্যাপশন

ফাল্গুনে হলুদ সর্ষে ফুলে মাঠ ভরে যায় যার উপর দিয়ে দক্ষিণা বাতাস ঢেউ খেলে যায়। বসন্তকালে বাংলার এমন রূপ যেন অন্য কোথাও মেলে না। বসন্ত পুরাতন সকল জীর্ণ মুছে দিয়ে নবীন পাতায় জাগিয়ে তুলে সবুজের আভা ও প্রকৃতিতে নিয়ে আসে নব ছন্দের ব্যাকুল শিহরণ।

ফাল্গুন এসেছে, ফুল ফুটেছে, রঙে রঙে ভরে উঠেছে।

কোকিলের কুহুতান, বাতাসে ফুলের সুবাস, বসন্তের আগমনী বার্তা।

নবীন পাতায় ছেয়ে গেছে গাছ, রঙিন পোশাকে সেজেছে প্রকৃতি।

বসন্তের হাওয়ায় মন উতলা, আনন্দে ভরে উঠেছে জীবন।

নতুন স্বপ্ন, নতুন আশা, বসন্তের সাথে এসেছে।

বসন্তের আনন্দে আপনার জীবন হোক ভরে উঠুক।

পহেলা ফাল্গুন শুভেচ্ছা

বাংলাদেশের ছয়টি ঋতুর মধ্যে বসন্তকালের আগমন যেন প্রকৃতিকে তাজা করে তার আসল রূপ ফিরিয়ে দেওয়ার মাধ্যমে বাংলাকে শুভেচ্ছা জানায়। । ফাল্গুন এসে প্রতিটি গাছের বৃদ্ধ পাতা কে জড়িয়ে নতুন কচি পাতা দেওয়ার মাধ্যমে গাছের যৌবনকে ফিরিয়ে দেয় এবং গাছ এ সময় ফুলে মুকুলে ভরপুর হয়ে যায়।

শুভ বসন্ত! আপনার জীবন হোক রঙিন, সুখে ভরে উঠুক আপনার ঘর।

বসন্তের এই আনন্দে, সবাই মিলে উদযাপন করি।

ফাগুনের গান, ফাগুনের আনন্দ, সকলের মনে ছড়িয়ে পড়ুক।

হোলির রঙে রাঙিয়ে, নতুন করে জীবন শুরু করি।

শুভেচ্ছা জানাই পহেলা ফাল্গুনের।

ফাগুনের রঙে আপনার জীবন হোক রঙিন।

ফাল্গুন নিয়ে কবিতা

বাংলাদেশের ছয়টি ঋতু যেন তাদের আপন আপন সৌন্দর্যের ডালির সাজিয়ে বাংলাকে করে তোলে সুসজ্জিত। বৃক্ষের বাকল চিরে নতুন পাতা বেরিয়ে আসার জন্য যেমন ফাল্গুনের অপেক্ষা করে তেমনি ফাল্গুন ও অপেক্ষায় থাকে তার সৌন্দর্য দিয়ে বাংলাকে মাতিয়ে রাখার। বাংলার এই সৌন্দর্য দেখে কবিগণ লিখেছে নানান কবিতা।

ফাগুন এসেছে গাছে গাছে ফুল,
কুহুতানে মাতোয়ারা কোকিল।
বাতাসে মাতোয়ারা সুবাস,
নবীন পাতায় ছেয়ে গেছে আকাশ।

বসন্তের আগমনী বার্তা,
নিয়ে এসেছে কোকিল।
ফুলের সুবাসে মাতোয়ারা,
মন উতলা হল।

নতুন স্বপ্ন নিয়ে এসেছে বসন্ত,
নতুন আশায় ভরে উঠেছে মন।
নতুন করে জীবন শুরু করি,
ফাগুনের এই রঙিন আকাশে।

ফাল্গুন নিয়ে পোস্ট

বর্তমান সময়ে আধুনিকতার ছোঁয়ায় বাংলার ঐতিহ্যপূর্ণ উৎসব পয়লা ফাল্গুন আজ যেন ধরাছোঁয়ার বাইরে। তবে শত ব্যস্ততার মধ্যেও বাংলার অনেক মানুষ বসন্তকে বরণ করতে ফাল্গুনের প্রথম দিনকে নিয়ে বিভিন্ন পোস্ট দিয়ে থাকে। তারা যেন আধুনিকতার ভিড়ে বাংলার ঐতিহ্যকে টিকিয়ে রাখতে চায়।

বসন্তের গান, ফাগুনের আনন্দ,
সকলের মনে ছড়িয়ে পড়ুক।
প্রেমের বন্ধনে আবদ্ধ হোক,
সকলের হৃদয়।

হোলির রঙে রাঙিয়ে,
নতুন করে জীবন শুরু করি।
ভেদাভেদ ভুলে,
সকলে মিলে উদযাপন করি।

শেষ কথা

ফাল্গুনের বাতাস বাংলার আকাশ বাতাস মুখরিত ও বাংলার প্রত্যেকটি মানুষের হৃদয়কে শীতল করে দিয়ে যায়। এই মনোরম পরিবেশে ক্ষণে ক্ষণে কোকিলের ডাক ভেসে আসতে শোনা যায়। বাংলার অনেক মানুষ শত ব্যস্ততার মধ্যেও ফাল্গুন নিয়ে ক্যাপশন দেওয়ার মাধ্যমে বসন্তকে বরণ করে নেয়।