ঢাকা টু মালয়েশিয়া বিমান ভাড়া কত ২০২৪

মালয়েশিয়া, মনোরম দ্বীপপুঞ্জ, ঐতিহাসিক স্থাপনা, এবং মুখরোচক খাবারের দেশ, অনেক বাঙালি ভ্রমণ পিপাসুদের স্বপ্নের গন্তব্য। আবার কিছু মানুষ রয়েছে তারা ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কাজের উদ্দেশ্যে প্রতিনিয়ত অনেক মানুষ মালয়েশিয়ায় চলে যাচ্ছে। কারণ বাংলাদেশ থেকে এখন খুব সহজেই মালয়েশিয়ায় যাওয়া যায়। এ কারণে প্রত্যেকেই মালয়েশিয়া আকাশ পথে যাওয়ার আগে বিমান ভাড়া সম্পর্কে জানার চেষ্টা করে।

এখন এক দেশ থেকে অন্য দেশে যাওয়ার সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হচ্ছে বিমান। খুব দ্রুত হাজার মাইল পথ বিমানের সাহায্যে পাড়ি দেওয়া যায়। বিভিন্ন ধরনের মালয়েশিয়া যাওয়ার বিমান এয়ারলাইন্স রয়েছে। সারাদিনের কয়েকটি ফ্লাইট এর মাধ্যমে ঢাকা টু মালয়েশিয়া যাতায়াত পরিচালনা করে। বিমানের ক্যাটাগরি অনুযায়ী ভাড়া কম বেশি হতে পারে। এবং বিভিন্ন কারণে ভাড়া আপডাউন হয়। আপনি ঢাকা টু মালয়েশিয়া বিমান ভাড়া কত আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ে জানতে পারবেন।

ঢাকা টু মালয়েশিয়া বিমান ভাড়া কত

দুইটি ক্যাটাগরিতে ঢাকা থেকে মালয়েশিয়ার বিমানের টিকিট বিক্রয় করা হয়। টিকিটের ক্যাটাগরি অনুযায়ী খরচ ভিন্নতা রয়েছে। এবং বিমান ভাড়া বিভিন্ন ফ্যাক্টরে নির্ভর করে, যেমন টিকেটের শ্রেণি, ভ্রমণের সময়, এবং সীমাবদ্ধতা। আপনি পছন্দ অনুযায়ী টিকেট ক্রয় করতে পারেন। এবং সময়ের সাপেক্ষে বিভিন্ন ডিসকাউন্টে বিমান ভাড়া কম বেশি হতে পারে। ইকোনমিক ক্লাস এবং বিজনেস ক্লাস বিমানের ভাড়া আলাদা ভাবে উল্লেখ করা হলো।

ইকোনমি ক্লাস এর ভাড়া

ইকোনমিক ক্লাস টিকিট ক্রয় করলে খরচ অনেক কম হয়। কারণ বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়ায় যেতে অনেকেই কম টাকার জন্য ইকোনমিক ক্লাস টিকিট ক্রয় করে। কিছু মানুষ রয়েছে তারা ইকোনোমিক টিকেট ক্রয় করার আগে সঠিক মূল্য জানার চেষ্টা করে। দেখে নিন বিভিন্ন বিমানে ঢাকা টু মালয়েশিয়া ইকোনমিক ক্লাসের ভাড়া।

  1. মালিন্দ এয়ারলাইন্সের ইকোনমি ক্লাস এর ভাড়া ৩৫ হাজার টাকা থেকে ৪০ হাজার টাকা।
  2. বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্সের ইকোনমি ক্লাস এর ভাড়া ৩৬ হাজার টাকা থেকে ৪০ হাজার টাকা।
  3. ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের ইকোনমি ক্লাস এর ভাড়া ৩৮ হাজার টাকা থেকে ৪৫ হাজার টাকা।
  4. ইন্ডিগো এয়ারলাইন্সের ইকোনমি ক্লাস এর ভাড়া ৩৮ হাজার টাকা থেকে ৪৫ হাজার টাকা।
  5. এয়ার এশিয়ার এয়ারলাইন্স ইকোনমি ক্লাস এর ভাড়া ৪২ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা।
  6. মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের ইকোনমি ক্লাস এর ভাড়া ৬৫ হাজার টাকা থেকে ৭০ হাজার টাকা।

বিজনেস ক্লাস এর ভাড়া

প্রতিদিন অল্প কিছু ফ্লাইট বিজনেস ক্লাসে ঢাকা থেকে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে যাতায়াত করে করে। বিজনেস ক্লাসটি কিছু সংগ্রহ করলে বিরতহীন সরাসরি মালয়েশিয়ায় পৌঁছানো যায়। এ কারণে অনেকে দ্রুত যাওয়ার জন্য বেশি টাকা খরচ করে বিজনেস ক্লাস টিকিট সংগ্রহ করে। আপনাদের সুবিধার্থে আমরা বিজনেস ক্লাস বিভিন্ন ফ্লাইটের টাকা থেকে মালয়েশা যাওয়ার বিমান ভাড়া উল্লেখ করেছি। দেখে নিন বিজনেস ক্লাসের ভাড়া গুলো।

  1. মালয়েশিয়ার এয়ারলাইন্স বিজনেস ক্লাস এর ভাড়া ৮০ হাজার টাকা থেকে ১ লক্ষ  টাকা।
  2. শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইন্স বিজনেস ক্লাস এর ভাড়া ৮২ হাজার টাকা থেকে ৯৫ হাজার টাকা।
  3. বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্স বিজনেস ক্লাস এর ভাড়া ৯০ হাজার টাকা থেকে ৯৮ হাজার  টাকা।

ঢাকা টু মালয়েশিয়া কত কিলোমিটার

ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মালয়েশিয়ার দূরত্ব প্রায় অনেক। বাংলাদেশ থেকে অনেকেই ভ্রমণের উদ্দেশ্য অথবা বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কাজে মালয়েশিয়া যাওয়ার আগে বিভিন্ন তথ্য জানার চেষ্টা করে। অনেকেই রয়েছে কত কিলোমিটার দূরত্ব এই তথ্যগুলো জানেনা। নির্দিষ্ট একটি কিলোমিটার দূরত্ব রেকর্ড করা হয়েছে। অর্থাৎ ঢাকা টু মালয়েশিয়ার দূরত্ব হলো ৩,৭১০ কিলোমিটার।

বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যেতে কত সময় লাগে

বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় বিমান এর ধরন অনুযায়ী ভিন্ন হতে পারে। অনেকে নতুন করে মালয়েশিয়া যাওয়ার আগে সময় সম্পর্কে জানার চেষ্টা করে। অর্থাৎ উন্নত মানের বিমানে বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যেতে সময় লাগবে ৪ ঘন্টা থেকে ৫ ঘন্টা। এবং লোকাল বিমান গুলোতে বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যেতে সময় লাগবে ৮ ঘন্টা থেকে ১০ ঘন্টা।

শেষ কথা

অনেকে রয়েছে ঢাকা থেকে মালয়েশিয়া যাওয়ার বিমান ভাড়া সম্পর্কে জানতে চায়। কারণ সময়ের সাথে এবং বিভিন্ন কারণে বিমান ভাড়া পরিবর্তনশীল হওয়ায় আপডেট তথ্য জানা থাকে না। ইতিমধ্যেই আমরা এ প্রশ্নের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের মালয়েশিয়া যাওয়ার বিমান ভাড়া উল্লেখ করেছি। আশা করি আপনি আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ে ঢাকা টু মালয়েশিয়া বিমান ভাড়া কত এ সম্পর্কে আপডেট তথ্য জানতে পেরেছেন। ধন্যবাদ

Mohsin Khan
Mohsin Khan